শিব লিঙ্গ কী ভাবে ও কি কি উপচারে পূজা করবেন ?

শিব লিঙ্গ পূজা পদ্ধতি – কথায় আছে যত্র জীব, তত্র শিব। ভক্তের খুব কাছের দেবতা হলেন দেবাদিদেব মহাদেব। তিনি নিরাপদ, অভয়শীল ও সদারক্ষণশীল। আত্মভোলা, সদাশিব সর্বদা ভক্তের মনোবাঞ্ছা পূরণ করেন। তিনি অল্প তেই চুষ্ট হন এবং মনোবাঞ্ছা সহজের পূরণ করেন। শিব সব থেকে শিবলিঙ্গ রূপে পূজিত হন। এই প্রবন্ধের সাথে 2020 সালের শিবরাত্রিরের প্রহর সূচীও উল্লেখ করা হল।

কেদার থেকে রামেশ্বর, গুজরাত থেকে পূর্বভারতে অসংখ্য শৈব তীর্থে দেবাদিদেব মহাদেব লিঙ্গ রূপেই বিরাজমান ও পূজিত হন। শাস্ত্রে উল্লেখ আছে, স্বয়ং ব্রহ্মা ও বিষ্ণুও নাকি শিবের লিঙ্গ তত্ত্ব সম্পর্কে সম্পূর্ণ ভাবে অনভিজ্ঞ। এই জগতের শুরু থেকে তিনি ছিলেন আর আছেন আর থাকবেন। তার কোন আদি নেই না আছে অন্ত। তিনি সাকার আবার নিরাকারও। সাকারে তিনি লিঙ্গরূপে অবস্থান করেন। ভক্তের মন মন্দিরে তিনি নিরাকার রূপে অবস্থান করে মনোবাঞ্ছা পূরণ করে থাকেন।

বাড়িতে বসে কাজ করতে চান। এই লিঙ্কটি ওপেন করুন

শিবপূরণ অনুযায়ী, দেবাদিদেব মহাদেবকে প্রসন্ন করার জন্য শিবরাত্রি একটি উল্লেখযোগ্য সময় বা তিথি বলা যেতে পারে। ঐ বিশষ দিনে তিনি ভক্তদের কাছে চার প্রহরে চারবার পূজা গ্রহণ করে থাকেন। এবং ঐ চারটি প্রহরে বিশেষ চারটি উপদানেই তার পূজা করা কর্তব্য বলে ঋষিরা উল্লেখ করেছিলেন।

প্রথম প্রহরে তিনি ঈশান নামে দুধের ধারায় স্নান করেন। দ্বিতীয় প্রহরে অঘোর নামে দই দ্বারা পূজিত হন। তূতীয় প্রহরে তিনি বামদেব নামে ঘি ধারায় পূজিত হব এবং চতুর্থ প্রহরে তিনি সদ্যজাতে নামে মধুর ধারায় পূজিত হন। অর্থাৎ শিবরাত্রিতে চারটি প্রহরে যথাক্রমে দুধ, দই, ঘি ও মধু দ্বারা পূজা করার কথা শাস্ত্রে উল্লেখ আছে।

শিব লিঙ্গ পূজা পদ্ধতি

এই চারটি উপাদানে পূজা গ্রহণের সময় তিনি ভক্তদের কি কি ফল দিয়ে থাকেন তা নিয়ে এবার আলোচনা করছি।

প্রথম প্রহরে দুধ ধারা শিবলিঙ্গের পূজায় ভক্ত শরীরে আরোগ্য লাভ, রোগ নাশ ও শক্তি বূদ্ধির ফল দান করেন।

দ্বিতীয় প্রহরে দই দিয়ে শিবলিঙ্গে স্নানের ধারা শিবভক্তের সর্বপাপ হরণ করেন দেবাদিদেব মহাদেব।

তূতীয় প্রহরে ঘি দ্বারা পূজা গ্রহণের মাধ্যমে তিনি ভক্তদের দুঃখ দারিদ্র, শোক, রোগভোগ থেকে উদ্ধার করেন।

চতুর্থ প্রহরে দেবাদিদেব মহাদেব মধুর ধারায় স্নানের মাধ্যমে প্রসন্ন হন এবং ভক্তদের শাপ, পাপ থেকে উদ্ধার করে সর্বসুখ প্রদান করে থাকেন।

একমাত্র তিনি এই ধরাধামে লিঙ্গ রূপে পূজিত হন। মহাদেব হলেন নিরাকার ব্রহ্মরূপী। আবার অন্য দিকে তিনি সাকার লিঙ্গ স্বরূপ। তাই তাকে ভক্তরা নিরাকার ও সাকার এই দুইরূপে পেয়ে থাকেন।

সাধারণ ভাবে লিঙ্গ শব্দটির অর্থ হল চিহ্ন বা প্রতীক। ভক্তেরা তাকে প্রতীক রূপে পূজা করে থাকেন।

শিব লিঙ্গের উৎপত্তির উপখ্যান বিভিন্ন ভাবে পূরানে উল্লেখ আছে। কয়েকটি পুরানে জ্যোর্তিলিঙ্গের আবির্ভাবের কাহিনী বর্ণিত আছে। আবার কোনও পুরানে শিবের জননইন্দ্রিয় থেকে লিঙ্গের উৎপত্তি কাহিনীও দেখতে পাওয়া যায়।

Ratri First Prahar Puja Time – 05:58 PM to 09:05 PM
Ratri Second Prahar Puja Time – 09:05 PM to 12:13 AM, Feb 22
Ratri Third Prahar Puja Time – 12:13 AM to 03:20 AM, Feb 22
Ratri Fourth Prahar Puja Time – 03:20 AM to 06:27 AM, Feb 22
Chaturdashi Tithi Begins – 05:50 PM on Feb 21, 2020
Chaturdashi Tithi Ends – 07:32 PM on Feb 22, 2020

বিনামূল্যে জ্যোতিষ পত্রিকা পড়ুন 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x
Translate »