জেলে রিয়া চক্রবর্তী প্রতিবেশী শিনা বোরা হত্যাকাণ্ডে অভিযুক্ত ইন্দ্রানী

জেলে রিয়া চক্রবর্তী আর প্রতিবেশী হল শিনা বোরা হত্যাকান্ডে অভিযুক্ত ইন্দ্রানী। কেমন কাটছে দিন পড়ুন বিস্তারিত

জেলে রিয়া চক্রবর্তী বিশেষ প্রতিবেদন- sushmita singha

জেলে রিয়া চক্রবর্তী আপডেট নিউজ


জেলে রিয়া চক্রবর্তীর প্রতিবেশী শীনা বোরা হত্যায় অভিযুক্ত হন ইন্দ্রানী মুখোপাধ্যায়।
২০১৭ সাল থেকেই এই সংশোধনাগারে রয়েছে ইন্দ্রানী। সূত্রের খবর, নতুন কেউ যদি সংশোধনাগারে আসে তাহলে তার সাথে তিনি দেখা করতে যান। আবার কারও কোনো সমস্যা হলেও নাকি তিনি পাশে দাঁড়ান।

জেলে রিয়া চক্রবর্তী প্রতিবেশী শিনা বোরা হত্যাকাণ্ডে অভিযুক্ত ইন্দ্রানী


রিয়া চক্রবর্তী কে মঙ্গলবার গ্রেফতার করেন NCB। আদালত জেল হেফাজতের নির্দেশ দিলে তাকে ঐদিন রাতে হেডকোয়ার্টারে রাখা হয়। এবং বুধবার সকালে তাকে মুম্বাইয়ের বাইকুলা জেলে পাঠানো হয়। সেখানেই ব্যারাকে থাকতে হবে রিয়াকে। সেই ব্যারাকেই নাকি রিয়ার সঙ্গে থাকার সম্ভাবনা রয়েছে শীনা বোরা হত্যাকান্ডের মূল অভিযুক্ত ইন্দ্রানী মুখোপাধ্যায়।

জেলে রিয়া চক্রবর্তী প্রতিবেশী শিনা বোরা হত্যাকাণ্ডে অভিযুক্ত ইন্দ্রানী

আবার পৃথক ব্যারাকেও অন্যান্য কয়েদিদের সঙ্গে রাখা হতে পারে তাকে। বুধবার সকাল ১০টা নাগাদ NCB গোয়েন্দারা কড়া পুলিশি হেফাজতে বাইকুলা জেলে নিয়ে যায় রিয়াকে।

Salman Khan। Phone No। Movie record । Salman Khan Latest News

সেখানেই আপাতত ট্রায়ালে রয়েছেন ইন্দ্রানী, যেহেতু কারোর কোন সমস্যা হলে পাশে দাঁড়ান সেহেতু মঞ্জুলা শেতে নামে এক কয়দির জেলে মৃত্যু হওয়ার কারণে তিনি প্রতিবাদ করেছিলেন। বাইকুলা জেলে এই মুহূর্তে কয়েদির সংখ্যা ২৫০ জন। জেল সূত্রে জানা গিয়েছে প্রথমে রিয়াকে জেনারেল ব্যারাকে রাখা হবে।

জেলে রিয়া চক্রবর্তী প্রতিবেশী শিনা বোরা হত্যাকাণ্ডে অভিযুক্ত ইন্দ্রানী

কেউ যদি জেলে আসে তাহলে সে প্রথমে তাদের জেনারেল ব্যারাকে বন্দি থাকে। শারীরিক নানা পরীক্ষার পরেই কমন ব্যারাক গুলিতে পাঠানো হয়। এক-একটি ব্যারাকের কয়েদির সংখ্যা ৪০-৫০ জন। মোট ছয়টি ব্যারাক রয়েছে। তারই কোনো একটিতে রাখা হবে রিয়াকে। ইতিমধ্যেই রিয়া চক্রবর্তীর শারীরিক পরীক্ষা হয়ে গেছে বলে জানানো হয়েছে। ফলে রাতের মধ্যেই হয়তো তাকে কমন ব্যারাকে পাঠানো হবে।
আজকের রাশিফল জেনে নিন কেমন যাবে আজকের দিন

রিয়ার জন্য যে সব জামাকাপড় আনা হয়েছিল তার সব তাকে দেওয়া হয়নি, খুব প্রয়োজনীয় জিনিস ছাড়া তাকে আর অন্য কিছু দেওয়া হবে না বলে জানানো হয়েছে। বুধবার বিকেলে তাকে ব্যারাকে পাঠানো হয়। ব্যারাক বলতে বিশাল বড় হল ঘর। যেখানে কয়েদিদের দেওয়া হয়, একটি করে কম্বল, একটি বালিশ, একটি চাদর এবং একটি লেপ। বিছানার মধ্যেই রাখতে হয় প্রয়োজনীয় জিনিসের প্লাস্টিক। রিয়াকে এই দিন জেলে দুপুরের খাবার দেওয়া হয়।

জেলে রিয়া চক্রবর্তী প্রতিবেশী শিনা বোরা হত্যাকাণ্ডে অভিযুক্ত ইন্দ্রানী

সেই খাবারে ছিল ভাত, দুটো রুটি ,ডাল এবং সবজি। জেলে ক্যান্টিনও রয়েছে। সেখানে কয়েদিরা নিজেদের যৎসামান্য টাকায় বিস্কুট, শুকনো সামান্য খাবার কিনে খেতে পারেন। বাইকুলা জেল সূত্রের খবর রিয়া এবং ইন্দ্রানীকে একই ব্যারাকে রাখা হবে না। তাদের দু’জনকেই আলাদা আলাদা ব্যারাকে রাখা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x
Translate »