করোনা ভাইরাসের উপকারিতা Breaking Talk

করোনা ভাইরাসের উপকারিতা – করোনা শুধু প্রাণ নিল ! জন জীবন স্তব্ধ করলো ! নাকি আরো কিছু উপকারও করেছে ?

জয় মা দুর্গা দুর্গতি নাশিনী। সকলকে জানাই জানাই শুভ দুর্গা পূজা শুভেচ্ছা। হ্যাঁ বন্ধু এটাই সঠিক সময় দুর্গা পূজার যাকে আমরা বাসন্তি পূজা বলেই জানি। শরৎ কালের দুর্গা পুজা হল অকাল বোধন।

আসছি মূল বিষয় বস্তুতে। করোনা কি কি ভাবে আমাদের উপকার করছে ?

তার আগে একটি ভূমিকার প্রয়োজন আছে । দিনের শেষে রাত আবার রাতের শেষে দিন আবার পুনরায় রাত। আলো থাকলে অন্ধকার আছে। আর অন্ধকার যদি থাকে তাহলে আলোও আছে। ভালাে যখন আছেন তখন মন্দ বা খারাপও আছে।

আরো পড়ুন Convid 19 নিয়ে কিছু দরকারি তথ্য প্রত্যেকে শেয়ার করুন

আমাদের প্রত্যেকের মধ্যে এই ভালো – খারাপ আলো অন্ধকার দুটিই রয়েছে। যখন ভালোর মাত্রা বূদ্ধি পায় তখন তা শুভ ফল প্রদান করে। আর খারাপের মাত্রা বূদ্ধি পেলে অশুভ ফল। ভালো বা যা শুভ তাকে দেবতা বলি। আর যা অশুভ বা অসুর বা শয়তানের আখ্যা পায়।

বর্তমানে করোনা ভাইরাস আজ মহামারি। বহু লোক আক্রান্ত। মারা গেছেন বহু মানুষ। আক্রাতের সংখ্যা বাড়ছে আবার সুস্থও হচ্ছে। কিন্তু আমাদের সর্তক থাকতে হবে সচেতন হতে হবে।

করোনার ফলে আমাদের জনজীবন স্তব্ধ। অর্থাৎ অসুরের রূপ ধারনে করে ক্রমাগত গ্রাস করছে আমাদের জীবন, দেশের অর্থনীতি পরিকাঠামো সহ সব কিছু।

তবে এর পরিস্থিতি আমাদের অনেক কিছু শিখিয়ে দিচ্ছে। যা থেকে পরবর্তীকালে আমরা উপকূত হতে পারি।

আরো পড়ুন কোন Blood Group করোনা ভাইরাস বেশী সংক্রামক হয় কি বলছেন বিজ্ঞানীরা জেনে নিন

সবার ওপরে মানুষ সত্য তাহার ওপর কেউ নাই। এই কথাটি উৎসর্গ করলাম সকল ডাক্তার, নার্স ও সকল স্বাস্থ্য পরিষেবার যুক্ত ভাই বোনেদের। যাদের অক্লান্ত পরিশ্রম আমাদের ভগবান দর্শন করিয়েছে।

আগে বলে ছিলাম যে, ভালো বা শুভ হলে স্বয়ংভগবান বা ঈশ্বের রূপ। তাই যে যারা নিজেদের জীবন বিপন্ন করে মানব সেবা নিজেদের এই মহামারিতে নিয়জিত করেছেন তারাই আজ দুর্গারূপী ঈশ্বেরর শক্তি।

তারা আজ শিব জ্ঞানে জীব সেবা করছে। তারাই প্রকূত ভগবান। যিনি বিপদ থেকে রক্ষা করেন তিনিও মা।মা দুর্গা।

এই পরিস্থিতিতে আমরা স্বয়ং ঈশ্বর দর্শন করলতে পেলাম।

পেলাম একটা দূষন মুক্তি পরিবেশ তবে যখন আবার জনজীবন শুরু হবে তখন আমরা আবার নিজেদের হাতে পরিবেশ ধংস করার দায়িত্ব তলে নেব আর বাড়াই তুলবো দূষণ।

এই সুযোগ যেখান থেকে আমাদের ঠিক করে নিতে আমাদের কে এই পরিবেশ কে রক্ষা করতে হবে। না হলে আরো বড় ধংসের মুখে চলে আসবো আমরা।

আমি মনে করি যেমন অসফলতা সফলতা কে এনে দেয় তেমনই এই মহামারি আমাদের সুযোগ দেবে আগামী জীবন গুলিতে কি ভাবে আমরা নিজেদের বাচিয়ে রাখব।

না হলে এমন পরিস্থিতি আসবে যা কোনো লকডাউনে আর কাজ হবে না।দায়িত্ব আমাদের। করোনা একটি আভাস মাত্র।

করোনার ফলে বিরোধীরা নিজেদের মধ্যে বিভেদ ভুলে আজ একসাথে মানুষের পাশে।

করোনা ভাইরাসের উপকারিতা এই মহামারি থেকে আমরা কি কি শিখলাম। প্রতিটি সময় আমাদের কিছু না কিছু শিক্ষা দেয় সেই শিক্ষা অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে আগামী জীবন শুরু হয়।

সকলে সুস্থ থাকুন। সর্তক থাকুন। করোনা মোকাবিলায় সচেতনা আর সতর্কতাই আমাদের প্রধান হাতিয়ার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x
Translate »