কেন আত্মহত্যা করল জগদ্দল থানার সিভিক ভলেন্টিয়ার

ছয় মাসের প্রেম আর দুই মাসের বিবাহ। সিভিক ভলেন্টিয়ারের আত্মহত্যা !

আত্মহত্যা করল সিভিক ভলেন্টিয়ার ঃ জগদ্দল থানার আতপুরের ফেরিঘাট রোডের একটি জনপ্রিয় নাম হীরক মিত্র। বয়স মাত্র আটাশ বছর। বাড়িটা জগদ্দল থানার আতপুরে ফেরিঘাট রোডের আতপুর গার্লস হাইস্কুলের পাশেই। হীরক মিত্র জগদ্দল থানার সিভিক ভলেন্টিয়ার ছিলেন।

আত্মহত্যা করল সিভিক ভলেন্টিয়ার

সূত্রের খবর, ছয় মাস ধরে প্রণয় সর্ম্পকে আবদ্ধ ছিলেন হীরক আর পরিনীতা। মাত্র দুই মাস হয়েছিল তাদের প্রণয় বিবাহের আকার ধারণ করেছিল। হঠাৎ কি হল যার জন্য আত্মহত্যা করতে হল হীরক মিত্র কে ?

মাত্র দুই মাস আগে জগদ্দল থানার নতুন গ্রামের বাসিন্দা পরিনীতার সাথে ছয় মাসের প্রেম বিবাহ রূপান্তরিত হয়েছে। 6ই এপ্রিল 2020 হীরক ও তাঁর স্ত্রীর মধ্যে অশান্তি হয়। 7ই এপ্রিল 2020 হীরকের স্ত্রী পরিনীতার মা এসে ওকে বাপের বাড়ি নিয়ে যায়।

তাজা খবর অ্যাম্বুল্যান্সে করে পাচার হওয়া মদ উদ্ধার

হীরক একাধিক বার বারণ করেছিল পরিনীতা কে বাপের বাড়ি যেতে। কিন্তু স্বামী কথা অমান্য করেই স্ত্রী তাঁর মায়ের সাথে চলে যায়।

একাধিকবার মানা করা সত্ত্বেও স্ত্রী হীরকের কথা না মেনে বাপের বাড়ি চলে গেল। সেই অভিমানেই হীরক বেছে নিল আত্মহত্যার পথ। 6ই এপ্রিল অশান্তি হয় আর 7ই এপ্রিল মঙ্গলবার মা শাশুড়ি এসে নিয়ে যায়ে হীরকের স্ত্রীকে।

আর সেই মঙ্গলবার 7ই এপ্রিল 2020, কাজ থেকে ফিরে হীরক আত্মহত্যা করে।

কার্যত 7 ই এপ্রিল 2020 মঙ্গলবার জগদ্দল থানায় একটি রক্তদান শিবির ছিল। আর বাড়ি এসেই হীরকের আত্মহত্যা। পাড়ার বন্ধুদের সকলের প্রিয়, কাজের স্থানে সকলের প্রিয় হীরক আর নেই।

জন্ম তারিখ অনুযায়ী আপনি কেমন মানুষ ? Numerology

ছয় মাসের প্রেম আর দুই মাসের বিবাহ বন্ধন থেকে নিজেকে মুক্ত করে সকলের চোখ ভিজিয়ে হীরক চলে গেল।

অন্য খবর, মালদা তে অ্যাম্বুলেন্সে করে মদ পাচার করতে গিয়ে পুলিশ ও আফগারি দপ্তরের হাতে ধরা পড়ে গেল মদ পাচার কারী। ঘটনাটি ঘটেছে মালদার ইংরেজবাজার এলাকায়। করেনা ভাইরাসে লকডাউনে মদ্যপানকারী দের অনেক চড়া দামে মদ বিক্রি করা হত। গোপণ সুত্রের খবর পেয়ে মদ পাচারকারী চক্রকে ধরে ফেলল মালদা পুলিশ।

উদ্ধার করা হয়েছে বোতল বোতল বিদেশী মদ। কোন কোন মদ ব্যবসায়ী এই মদ কালো বাজারীদের সাথে যুক্ত তাই নিয়ে তদন্ত শুরু হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x
Translate »