বাংলায় CBI হাজিরে আশঙ্কায় তৃণমূল, ভোটের আগেই সারদা কান্ডের নোটিশ নিয়ে বাংলায় CBI

আবার বাংলায় এলো CBI , সারদা কান্ডের তদন্তের জন্য পুনরায় বাংলায় উপস্থিত সি বি আইয়ের টিম। দিন দশক আগে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মাননীয়া মমতা ব্যানার্জী নবান্নে একটি বৈঠকে বলেছিলেন ভোট আসলে কোনো কোনো বিষয় নিয়ে বাংলা চলে আছে CBI টিম। তার মুখের কথা পুরো মিলে গেল। মমতা ব্যানার্জীর সেই কথাই সত্যি হয়ে গেল এবার। বিস্তারিত পড়ুন

সারদা কান্ডে মামলার নোটিশ নিয়ে বাংলায় পৌছাল CBI

গত রবিবার রাঁচি থেকে CBI এর একটি টিম এসে পৌছায় কলকাতায়। সারদা কান্ডে যে তদন্ত শুরু হয়েছিল তারই ভিত্তিতে সারদা কর্ণধার সুদীপ্ত সেন, দেবযানী মুখ্যোপাধ্যায়, সুদীপ্ত সেনের ছেলে শুভজিৎ সেন সহ পিয়ালী মুখ্যার্জীকে সেই মামলার নোটিশ ধরিয়ে দিল CBI টিমের কর্তারা। গত তিন বছরে সারদা কান্ড নিয়ে ভুবনেশ্বর ও গুয়াহাটিতে সারদা নিয়ে মামলা থাকলেও তিন বছর পরে হঠাৎ রাচি থেকে মামলার নোটিশ আশায় রাজনৈতিক মহলে শুরু হয়েছে নানা গুঞ্জন।

আরো পড়ুন এই লিঙ্কটি ওপেন করে সোজা বাংলায় বলছি দিদির নতুন কর্মসূচী দিদি কে বলোর পর নতুন ভিডিও সিরিজ নিয়ে তৃণমূল

গত বছর মে মাসে সারদা কান্ড নিয়ে বেশ জল ঘোলা হলেও ক্রমশ তা থমথমে হয়ে গিয়েছিল। কোরনা ভাইরাসের কারনেও তদন্ত কিছুটা শিথিল হলেও কিন্তু পুনরায় ভোট আসার আগে আগে আবার নড়ে চড়ে বসেছে CBI তদন্তকারী দল। মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী যে আশঙ্কা করেছিল তা এবার সতি্য হল। তিনি সম্প্রতি একটি বৈঠকে বলেছিল ভোট আসার আগে আগে কেন্দ্র তাদের CBI টিম পাঠায় রাজ্যে। মিলে গেল এবার তার আশঙ্কা।

বাংলায় CBI হাজিরে আশঙ্কায় তৃণমূল, ভোটের আগেই সারদা কান্ডের নোটিশ নিয়ে বাংলায় CBI

CBI টিমের তরফ থেকে কলকাতায় চারজনকে এই নোটিশ দিয়েছেন তদন্তকারি CBI কর্তারা।

অপর দিকে যতই ভোট এগিয়ে আসছে রাজ্যে শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস এবং রাজ্যের প্রধান বিরোধী দল বিজেপির মধ্যে এইতি মধ্যে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক লড়াই। 2021 সালের আসন্ন বিধান সভা নির্বাচনে রাজনৈতিক বোঝাপড়া ঠিক করতে নানা কৌশল তৈরী করছে দুটি দল।

একুশে জুলাই শহীদ দিবসে তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে মাননীয়া মমতা ব্যানার্জী একাধিক প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন আবার অন্য দিকে এই সকল প্রতিশ্রুতি গুলিকে মিথ্যা বলে বক্তব্য দিয়েছে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল।

নিজেদের মাটি শক্ত করতে এবার মমতা ব্যানার্জীর নতুন স্লোগান সোজা বাংলায় বলছি। এক অভিনব পদ্ধতিতে নতুন ভাবে বাংলার মানুষদের বিজেপি বিরোধি মনোভাব তৈরী করতে সপ্তাহে তিনদিন করে ভিডিও সিরিজ নিয়ে আসছে তৃণমূল কংগ্রেস। যার নাম সোজা বাংলায় বলছি।

আবার অপর দিকে মুকুল রায় নাকি বিজেপি ছেড়ে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিচ্ছে এই নিয়েই বিভিন্ন রাজনৈতিক মহলে জল্পনা শুরু হয়েছে।

বিস্তারিত পড়ুন লিঙ্কটি ওপেন করে – মুকুল বললেন আমি বিজেপিতেই আছি। বিজেপি আমাকে যোগ্য সম্মান দিয়েছে।

এবার ভোটে প্রধান বিষয় হতে পারে করোনা ভাইরাসের ফলে লকডাউন পরিস্থিতি। ইতি মধ্যে তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে রাজ্য কে কি কি ভাবে বঞ্চিত করা হচ্ছে তাই প্রচার চালাতে শুরু করেছে দল। অন্য দিকে বিজেপির নিশানায় তৃণমূল কংগ্রেস। অনেকে বলছেন তৃণমূল কংগ্রেসের বহু নেতা নেতী, বিধায়ক এমনকি সাংসদদের একাংশ নিয়মিত রাজ্য তথা কেন্দ্রীয় বিজেপি নেতাদের সাথে যোগাযোগ রেখে চলেছে। যে কোনো সময় তৃণমূল কংগ্রেস ভেঙে যেতে পারে। তৃণমূল কংগ্রেসের বহু নেতা – নেতী বিজেপিতে যোগদান করার জন্য তৈরী হয়ে আছে।

এখন দেখার বিষয় রাজ্য ও কেন্দ্রের এই লড়াইতে বাংলার মানুষ কতটা লাভবান হচ্ছেন।

কি ভাবে অর্থ সঙ্কট দূর করবেন জানতে বিনামূল্যে পড়ুন জ্যোতিষ পত্রিকা এই লিঙ্কটি ওপেন করে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x
Translate »