Breaking News গ্রেফতার হলেন বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ

Breaking News : গ্রেফতার হলেন বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ

প্রতিবেদন সুস্মিতা সিংহ – সোশ্যাল মিডিয়ায় আসানসোল পুরসভায় হোডিংয়ের যে ছবি বেরিয়েছিল সেটিকে বিকৃত করে বিভেদমূলক প্রচারের অভিযোগ ওঠে যুব মোর্চার রাজ্য সম্পাদক বাপ্পা চট্টোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে। এই অভিযোগকে কেন্দ্র করেই গ্রেপ্তারও করা হয় ওনাকে। এই অভিযোগ ও গ্রেফতারের বিরুদ্ধে আসানসোলের পুলিশ কমিশনারের অফিসের সামনে শনিবার ধর্নায় বসে ছিলেন, বিষ্ণুপুরের সংসদ তথা বিজেপির যুব মোর্চার সভাপতি সৌমিত্র খাঁ।

Soumitra Khan Breaking News
প্রতিবাদ করার ভিত্তিতে সেদিন ওনাকে গ্রেফতার করেন পুলিশ। কিন্তু পরে পি আর বন্ডে ছেড়ে দেওয়া হয়। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায় আসানসোল পৌরসভার ভুয়ো সাইনবোর্ড এর ছবি। সেই ছবিটিতে দেখা যাচ্ছিল হিন্দি, ইংরেজি, উর্দুতে লেখা ‘আসানসোল পুরসভা’। এই সাইনবোর্ডের ছবি দেখে দাবি করা হয়েছিল যে সেখানে বাংলাকে উপেক্ষিত করা হয়েছে। পুরো কর্তৃপক্ষের অভিযোগ ছিল ,উপরে থাকা বাংলা হরফ সুকৌশলে বাদ দিয়ে এ কাজ করেছে বিজেপির আইটি সেল! সেই ছবিটি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করার অভিযোগে শুক্রবাররাতেই বিজেপির যুব মোর্চার রাজ্য সম্পাদক বাপ্পা চট্টোপাধ্যায় কে গ্রেফতার করেন পুলিশ।

Breaking News গ্রেফতার হলেন বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ


ধর্না দেওয়ার প্রতিবাদে শনিবার সকালে পুলিশ কমিশনার গ্রেফতার করেছিলেন যুব মোর্চার সভাপতি তথা বিষ্ণুপুরের সাংসদ সৌমিত্র খাঁ সহ বেশ কয়েকজন। সেই সময় সৌমিত্র খাঁ বলেন, “প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং সংসদ বাবুল সুপ্রিয়র নামে অহরহ পোস্ট সোশ্যাল মিডিয়ায় করা হয়েছিল। তখন কোনো গ্রেফতার হয় না, এবং বিজেপির বিধায়ক এর খুনের ঘটনাও ধামাচাপা দেওয়া হয়, অথচ অন্যের পোস্ট শেয়ার করলেই বিজেপি রাজ্য নেতৃত্ব কে গ্রেফতার করা হয়। এইভাবে যদি চলতে থাকে তাহলে জেলা সহ গোটা রাজ্য স্তব্ধ করে দেবো আমরা। পি আর বন্ডে ছাড়া পাওয়ার সাথে সাথেই সৌমিত্র খাঁ আদালতে যান, যেখানে বিজেপির যুব মোর্চার রাজ্য সম্পাদক কে পেশ করা হবে।

Breaking News গ্রেফতার হলেন বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ

Sushant Singh Rajput case Murder or suicide Mistry Revel


অন্যদিকে, এই গ্রেফতারের ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন বিজেপির একাধিক নেতা কর্মীরা। দলের রাজ্য সংগঠনের যুব সভাপতি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ এবং সমস্ত বাঁকুড়া জেলা জুড়ে আন্দোলন নামালেন বিজেপির নেতা কর্মীরা।
এই আন্দোলন বাঁকুড়ার শহর সংলগ্ন কেরানি বাঁধ রাজ্য সড়ক ও বিষ্ণুপুর রসিকগঞ্জ বাস স্ট্যান্ড সংলগ্ন রাস্তা অবরোধ করেন বিজেপিসহ দলের মোর্চার সদস্যরা। অবরোধকারীদের দাবি পুলিশদেরকে কাজে লাগিয়ে শাসক দল বিজেপির ‘কণ্ঠরোধ’ করার চেষ্টা করছে। এর বিরুদ্ধে তারা লড়াই ও আন্দোলন চালিয়ে যাবেন বলেও জানান।

আর্থিক উন্নতি তে বাধা কাটানোর সহজ উপায় ঘরোয়া টোটকা


বিজেপির বিষ্ণুপুর সাংগঠনিক জেলা সভাপতি হরকালী প্রতিহার পুলিশের ভূমিকার তীব্র সমালোচনা করে বলেন যে পুলিশ আধিকারিকরা শাসক দলের ‘দালালি করছেন তারা উর্দি ছেড়ে তৃণমূলের ঝাণ্ডা ধরুন, দেখি তারপর আপনাদের কতটা জনপ্রিয়তা আছে। যুব মোর্চার রাজ্য সভাপতি ও সাংসদ এ ও বলেন যে সৌমিত্র খাঁ কে পুলিশ ‘অন্যায়ভাবে গ্রেফতার’ করেছে এবং তিনি আরো বলেন, “২০২১ সালে এর যোগ্য জবাব মানুষ দেবেন”।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x
Translate »