করোনার আশঙ্কায় সিল করা হল ভাটপাড়া ৮ নং ওয়ার্ড

ভাটপাড়া পৌরসভার আট নম্বর ওয়ার্ডে একজন ব্যক্তির করোনা সংক্রামন নিয়ে চাঞ্চল্য ছড়ায় এলাকায়। পেশায় তিনি রাজমিস্ত্রী।

ঐ ব্যক্তির সাথে বিদেশ বা অন্য রাজ্যে যাওয়ার কোনো যোগসূত্র এখনো পাওয়া যায় নি। তবে প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোনো ঝুকি না নিয়ে গোটা এলাকা সিল করে দেওয়া হয়েছে।

প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানা গিয়েছে যে, ভাটপাড়া পৌরসভার ঐ ওয়ার্ড থেকে বেশ কয়েকজন নিজামুদ্দিনে যোগ দিতে গিয়েছিলেন। এবং তাদের কে চিহ্নিত করে কোয়ারান্টাইনে রাখা হয়েছে। তবে যে ব্যক্তির করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবর এসেছে তার অন্য কোনা রাজ্য যাওয়ার কোনো খবর পাওয়া যায় নি। এবং এটাও মনে করা হচ্ছে যে তার সাথে নিজামুদ্দিন থেকে ফেরব ব্যক্তিদের কোন যোগসূত্র নেই।

অন্যখবর কেন আত্মহত্যা করল জগদ্দল থানার সিভিক ভলেন্টিয়ার

এমতাবস্থায়, প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোনো ঝুকি না নিয়ে দ্রুত সিল করে দেওয়া হয় গোটা এলাকা। লকডাউন চলাকালীন যাতে প্রত্যেকে ঘরেই থাকেন সেই ব্যাপারেও সচেনতনতামূলক প্রচার আরও বাড়ানো হয়েছে বলে জানা গেছে প্রশাসনের পক্ষ থেকে। একইসঙ্গে এলাকায় নজরদারিও বাড়ানো হয়েছে। করোনা আক্রান্ত ওই ব্যক্তি কার কার সংস্পর্শে এসেছিলেন এবার তাঁদের চিহ্নিত করার কাজ শুরু হয়েছে।

সৌভাগ্যের বন্ধু জ্যোতিষ পত্রিকা পড়ুন বিনামূল্যে

দেশের পাশাপাশি এরাজ্যেও ক্রমেই বাড়ছে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী আমাদের রাজ্যে এখনও পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ১৩৪। পশ্চিমবঙ্গে করোনায় আক্রান্ত হয়ে এখনও পর্যন্ত ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে।

পরিস্থিতি মোকাবিলায় সবরকম চেষ্টা চালাচ্ছে কেন্দ্র ও রাজ্য সরকার। শনিবারই রাজ্যে লকডাউন আরও ১৫ দিন বাড়ানোর ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সংক্রমণের ছড়িয়ে পড়া এড়াতে রাজ্যবাসীকে লকডাউনের সব নিয়ম মেনে চলতে আবেদন জানিয়েছেন মু্খ্যমন্ত্রী।

সকলে সর্তক থাকুন। লকডাউন মেনে চলুন। অযথা গুজবে কান দেবেন না। করোনা মোকাবিলায় সর্তকতা একমাত্র প্রধান হাতিয়ার ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x
Translate »