Astrological Tips for Financial Problem এগারোটি অব্যর্থ টোটকা

Astrological Tips for Financial Problem অর্থাৎ আর্থিক সমস্যাার প্রতিকার জ্যোতিষ শাস্ত্র মতে।

বর্তমান সময় বা পরিস্থিতিতে করোনা মহামারি এমন ভাবে আমাদের সমাজে ছড়িয়ে পড়েছে, তার ফল সরূপ লকডাউনের অনেকেরই রোজগার বন্ধ। দেখতে গেলে প্রায় বেশি সংখ্যক মানুষের রোজগার বন্ধ। আর সেই সংখ্যাটা বেশির ভাগই মধ্যবিত্ত ও নিম্নবিত্ত মানুষের মধ্যেই রয়েছে।

অনেকে এই লকডাউনে কর্মহীন হয়ে পড়েছে। যাদের ছোটো ব্যবসা তাদেরও প্রায় রোজগার নেই। কিন্তু বেঁচে থাকার লড়াইতো চালাতেই হচ্ছে।

কিন্তু এখন উপায় !

লকডাউন প্রক্রিয়া যঠে গেলেও আগের মতো সব কিছু স্বাভাবিক হতে গেলে সময় লগবে প্রচুর। কিন্তু পেট ? পেট মানবে কি ?

তাহলে কি করে রোজগার করতে হবে ? বা কি ভাবে দূর হবে আর্থিক সমস্যা ?

আপনারা যারা এই প্রবন্ধটি পরছেন, তারা হয়তো এই সময় এমন কিছু মানুষদের দেখেছেন যারা এই লকডাউনেও তাদের রোজগার করে গেছে, ব্যবসাও করে গেছে। অনেকে লকডাউনের সুযোগ নিয়ে অর্থ রোজগার করেছে। আবার এই পরিস্থিতিতে অনেকের কর্মহীন হয়ে পড়েছে।

যাই হোক এবার আসল বিষয় আসা যাক। এটা তো মানেন যে প্রত্যেক রাশি চক্রে গ্রহের পরিস্থিতি বা অবস্থান এক নয়। তাই সেই মতনই ফল পেতে হয়। একেই রোজগার বন্ধ তার ওপরে আবার টাকা খরচ করে নিজেদের ভাগ্য বিচার করাটাও অনেকেও পক্ষে সম্ভব নয়। তাই জ্যোতিষ শাস্ত্র মতে কিছু বৈদিক ক্রিয়া উল্লেখ করা হল, এই ক্রিয়া গুলি করে দেখতে পারেন। আশা করি আর্থিক উন্নতি হবে। আর সাথে চেষ্ঠা ও নিজের কর্ম দক্ষতাকে অবশ্যই কাজে লাগাতে হবে। জ্যোতিষ শাস্ত্র মনার আগে নিজের প্রতি বিশ্বাস রাখাটা আগে প্রয়োজন।

Sushant Singh Rajput এর মৃত্যু রহস্য ! কি উঠে এলো ময়নাতদন্তে ?

11টি আর্থিক উন্নতির টিপস্ বা টোটকা উল্লেখ করা হল। করে দেখুন উপকার পাবেন। নিজে উপকার পেলে তবেই অন্যকেও পথ দেখাবেন। এই টোটকা গুলি পালন করতে সামান্য মাত্র খরচ তবে একাগ্রতার বেশি প্রয়োাজন। নিজের প্রতি বিশ্বাস বেশি প্রয়োাজন।

Astrological Tips for Financial Problem এগারোটি অব্যর্থ টোটকা

Astrological Tips for Financial Problem

আর্থিক উন্নতির টোটকা ঃ এক

প্রতিদিন স্নানের পরে একটি তামার ঘটিতে একটু জল, দুর্বা ও আতপচাল সহযোগী পূর্বদিকে দাড়িয়ে সূর্য দেবের উদ্দেশ্যে অর্ঘ্য প্রদান করুন। আর্থিক স্থিতির শুভ পরিবর্তন হবে। মন্ত্র ঃ ওঁ অদিত্যায় সূর্যায় নমঃ

আর্থিক উন্নতির টোটকা ঃ দ্বিতীয়

বাড়িতে প্রধান দরজার ঠিক ভিতরে মাথার উপরে একটি গণেশজীর একটি মূর্তি স্থাপন করুন। এটি আপনার ব্যবসার স্থান বা অফিসেও করতে পারেন। প্রতিদিন 11টি বা অল্প পরিমান দুর্বা গণেশজীর অর্পন করুন।

আর্থিক উন্নতির টোটকা ঃ তূতীয়

বাড়িতে বা ব্যবসার স্থানে একটি শ্রীযন্ত্রম প্রাণ প্রতিষ্ঠা করে স্থাপন করুন। আর্থিক শ্রীবূদ্ধি হবে।

আর্থিক উন্নতির টোটকা ঃ চতুর্থ

প্রতি বূহস্পতিবার মা তাঁরার চরণে একটি লাল জবা, একটি বেলপাতা রক্ত চন্দন সহযোগে অর্পণ করুন। এই সময় তিনবার মা তাঁরার গায়ত্রী মন্ত্র পাঠ করতে ভুলবেন না। তাঁরা গায়ত্রী ঃ ওঁ তারায়ৈ বিদ্মহে মহাগ্রায়ৈ ধিমহী তন্নো দেবী প্রচোদয়াৎ।

আর্থিক উন্নতির টোটকা ঃ পঞ্চম

বাড়িতে পূজার স্থানে মা লক্ষীর পাশে একটি একাক্ষী নারিকেল স্থাপন করতে পারেন। এতে গূহে শান্তি বজায় থাকে।

আর্থিক উন্নতির টোটকা ঃ ষষ্ঠ

অর্থ সম্বন্ধীয় কো কাজে যাওয়ার আগে অবশ্যই মা লক্ষী ও গণেশজী কে দর্শণ করে কাজের উদ্দেশ্যে রাওনা হন। পুরুষেরা ডান পা ও মহিলারা বাম পা প্রথমে দিয়ে কাজের উদ্দেশ্যে রওনা হন।

আর্থিক উন্নতির টোটকা ঃ সপ্তম

বাড়িতে তুলসী গাছ রোপণ করুন। প্রতিদিন সন্ধ্যায় ঘিয়ের প্রদীপ জ্বালাম এতে অবশ্যই আর্থিক উন্নতি হবে।

আর্থিক উন্নতির টোটকা ঃঅষ্টম

কোন ব্যবসায়িক লেনদেনে যাওয়ার সময় বাড়ির কোন সদস্য একমুটো বিউলির ডাল আপনার মাথায় ঘুরিয়ে মাটিতে ফেলে দিলে বাড়িতে অর্থ আসে।

আর্থিক উন্নতির টোটকা ঃ নবম

কোন বূহস্পতিবার কো সধবা স্ত্রীকে আলতা, সিন্দুর, লাল টিপ ইত্যাদি নানা ধরনের কমপক্ষে সাতটি প্রসাধনী দ্রব্য একটি হলুদ কাপড়ে বেধে মনে মনে নিজের অর্থপ্রাপ্তির মনোস্কমনা জানিয়ে দান করুন। এই প্রক্রিয়া যদি পর পর সাতটি বূহস্পতিবার পালন করা যায়, তা হলে অতি উত্তম ফল লাভ হয়।

আর্থিক উন্নতির টোটকা ঃ দশম

যে কোন একটি শুভ দিন দেখে সামান্য পরিমান কালো হলুদ কিনে। আপনার ঠাকুর ঘরে রেখে দিন প্রত্যহ নিজের মনস্কামনা জানিয়ে ধূপ দীপ দেখান। কোন অর্থ সম্বন্ধীয় কাজে যাওয়ার সময় অবশ্যই সেই কালো হলুদ এর দর্শন করে কর্মক্ষেত্রে রওনা দিন।

নিজের গ্রহদোষ নিজেই কাটান

আর্থিক উন্নতির টোটকা ঃ একাদশ

যেসকল জাতক-জাতিকারা ধনহানির সম্মুখীন হন। তারা একটু কালো তিল নিজের মাথার চারপাশে সাতবার ঘুরিয়ে বাড়ির উত্তর দিকে ফেলে দিন ধনহানি বন্ধ হবে।

Astrological Tips for Financial Problem উপরের দেওয়া টোটকা গুলি করে দেখতে পারেন। নিজে উপকার পেলে অন্যকেও শেয়ার করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x
Translate »