বাড়িতে থেকে মেদ বেড়েছে ? ঝরিয়ে ফেলুন এই ডায়েট প্ল্যানে

বাড়িতে থেকে মেদ বেড়েছে ! চিন্তা নেই মেনে চলুন এই ডায়েট প্ল্যান

বাড়িতে থেকে মেদ বেড়েছে এই সমস্যা আজ কাল প্রায় দেখা যায় আর শোনা যায়। চিন্তার কোনো কারণ নেই। এই প্রবন্ধে মেদ কমানোর জন্য ডায়েট প্ল্যান নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে।  রোগা হতে গেলে আমাদের শরীরে প্রয়োজন হাই-প্রোটিন ডায়েট। ডায়েটিশিয়ানরা বলেন ডায়েটে কার্বহাইড্রেটের পরিমাণ কমিয়ে হাই-প্রোটিন খাবার যোগ করতে।

এই কথাটা জানলে অবাক হবেন যে, শরীরে মেদ কমাতে মাছ–মাংস–ডিম এর ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। এখনও অনেকেই ভাবেন শরীরে ওজন কমাতে নিরামিষের বিকল্প নেই ৷ সে ভাবনা একেবারে যে ভুল তাও নয় ৷ কিন্তু যদি অল্প তেলে রান্না করা পর্যাপ্ত শাক–সবজি–ডাল, কম মিষ্টি যুক্ত ফল ও অল্প ব্রাউন রাইস বা ব্রাউন ব্রেড খাওয়া যায়, আর হাই ক্যালোরি খাবার বাদ দেওয়া যায়, তাহলে ওজন কমবে এবং শরীরে মেদ ঝড়ে যাবে। তবে তার সঙ্গে পর্যাপ্ত প্রোটিন না থাকলে কিন্তু মুশকিল।

শিশুদের শরীরে করোনার লক্ষণ গুলি কি কি জেনে নিন কি ভাবে সর্তক থাকবেন

 শরীরের ভেতরে কাজ চালাতে প্রোটিনের (Protein) ভূমিকা রয়েছে অনেক বেশী ৷ প্রোটিন খিদে কমায়, পেট ভরা রাখে, বাড়ায় শরীরে ক্যালোরি খরচের হার, পেশির গঠন সুদৃঢ় করতেও প্রাটিন যথেষ্ট সাহায্য করে ৷

প্রোটিন (Protein) হজমের সময় মেটাবলিক রেট প্রায় ২০–৩৫ শতাংশ বাড়ে, কার্বোহাইড্রেট বা ফ্যাট হজমের সময় বাড়ে ৫–১৫ শতাংশ৷ গবেষণায় দেখা গিয়েছে যাঁরা প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবারে অভ্যস্ত, খাওয়ার পর বহুক্ষণ পর্যন্ত বেশ ভাল পরিমাণে ক্যালোরি খরচ হতে থাকে তাঁদের৷ মেটাবলিক রেট হয়ে যেতে পারে প্রায় দ্বিগুণ ৷

বাড়িতে থেকে মেদ বেড়েছে ? ঝরিয়ে ফেলুন এই ডায়ের প্ল্যানে

আমাদের শরীরে প্রোটিনের (Protein) ভূমিকা কতটা?

শরীরের ভিতরে কাজ চালাতে প্রোটিনের (Protein)ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ৷ খিদে কমায়, পেট ভরা রাখে, বাড়ায় শরীরে ক্যালোরি খরচের হার, পেশির গঠন সুদৃঢ় করতেও তার জুড়ি নেই ৷ প্রায় অনেকেই ভাবেন আমিষ ছাড়া প্রোটিন হয় না ৷ এই ধারণাটা কিন্তু ভুল।

উদ্ভিজ্জ প্রোটিনও (Protein) আছে এর মধ্যে ৷ যেমন বিন্স,ডাল, বীজ, বাদাম, রাজমা, ছোলা, দুধ, দই, পনির, ছানা৷ তবে তার মধ্যে অনেকগুলিই স্বয়ংসম্পূর্ণ নয় ৷ তাই সে সব খেয়ে চাহিদা পূরণ করতে গেলে অনেক কাঠ–খড় পোড়াতে হয় ৷

শরীরে ফ্যাট কমানোর উপায় জেনে নিন মেথির চমৎকারী টোটকা

আমাদের শরীরে কতটা প্রোটিন (Protein) রাখা দরকার?

ডিআরআই–এর মতে প্রতি কেজি আদর্শ ওজনের জন্য ০.৮ গ্রাম প্রোটিনই যথেষ্ট ৷ বহু বিশেষজ্ঞের মতে, এত টুকু খেলে শরীরে এর অভাব না হলেও বাড়তি উপকার পাওয়ার আশা কম ৷ তাঁদের মতে, প্রতি কিলোগ্রাম ওজনের জন্য ১.৩ গ্রাম প্রোটিন খাওয়া জরুরি ৷ আবার কম বয়সে যদি ওজন ও ফ্যাট কমিয়ে পেশি তৈরি করতে চান, খেতে হবে প্রতি কেজিতে ১.৬ গ্রামের হিসেবে ৷

বিজ্ঞানীরা দেখেছেন যাঁরা ২.৪ গ্রামের হিসেবে প্রোটিন খান, তাঁদের তুলনায় যাঁরা ১.৬ গ্রাম খান, তাঁদের উপকার হয় বেশি৷ মোটামুটি হিসেবে খাবারের মোট ক্যালোরির ২০–৩০ শতাংশ আসা উচিত প্রোটিন থেকে ৷ দিনের প্রতিটি খাবারের সঙ্গেই যেন পর্যাপ্ত প্রোটিন থাকে ৷

বাড়িতে থেকে মেদ বেড়েছে ? ঝরিয়ে ফেলুন এই ডায়ের প্ল্যানে

নিজের একটি ফুড ডায়েরি তৈরী করুন 

মেদ কমানোর জন্য ডায়েট প্ল্যান – আপনি সচরাচর যে খাবার খেয়ে সুস্থ থাকেন তাতে প্রোটিন ও অন্যান্য উপকারি উপাদান কী মাত্রায় আছে তা দেখে এই খানে কিক্ল করে ৷ সারা দিনে কত ক্যালোরি খাচ্ছেন সেই হিসেবও এখান থেকে আপনি পাবেন।

এবার অল্প–বিস্তর রদবদল করলেই দেখবেন পুষ্টি ও ক্যালোরির টার্গেটে পৌছে গিয়েছেন৷ খাবার যাতে সুষম হয়, সে দিকে খেয়াল রাখুন ৷ অর্থাৎ পর্যাপ্ত প্রোটিন খাওয়ার পাশাপাশি উপকারি ফ্যাট ও কার্বোহাইড্রেটও যেন মাপমতো থাকে৷

আপনার ডায়েটে রাখতে পারেন উদ্ভিজ্জ প্রোটিন (Protein)

উদ্ভিজ্জ প্রোটিন যেমন, বিন্স, ডাল, মটর–রাজমা–ছোলা, সয়াবিন, বাদাম ও বিভিন্ন বীজে অনেকগুলি অ্যামিনো অ্যাসিড আছে বিভিন্ন মাত্রায়৷ তাদের মাধ্যমে প্রোটিনের চাহিদা পূরণ করতে গেলে খেতে হবে মিলিয়ে–মিশিয়ে৷ যেমন, বিন্স অন টোস্ট, সবজি মেশানো খিচুড়ি, ভাত–ডাল–সবজি ইত্যাদি ৷

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x
Translate »