বহু চিটফান্ড মালিক লুকিয়ে আছে পুলিশ কি তাদের ধরতে পারে

আজকের ব্রেকিং নিউজঃ বহু চিটফান্ড মালিক লুকিয়ে সম্প্রতি নজরে উঠে আসছে এক নতুন মোড় সারদার পাশাপাশি আরও 25 টি চিটফান্ডের কর্ণধারেরা নাকি বেপাত্তা


বিশেষ প্রতিবেদনঃ SUSHMITA SINGHA

বহু চিটফান্ড মালিক লুকিয়ে সূত্রের খবর অনুযায়ী সারদার পাশাপাশি সিবিআইয়ের নজরে এখন পশ্চিমবঙ্গের আরও 25 টি চিটফান্ড। যার কর্ণধাররা এখনো বেপাত্তা।
গত তিন মাস ধরে ওই প্রত্যেকটি সংস্থার বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হয়।

এই মামলা দায়েরের ভিত্তিতে ইতিমধ্যে তদন্ত শুরু করেছে সিবিআই।
এদিকে আবার সারদা এবং রোজভ্যালি মামলায় চূড়ান্ত চার্জশিট জমা দেওয়ার জন্য তদন্ত চালিয়ে যাচ্ছে সিবিআই।

বহু চিটফান্ড মালিক লুকিয়ে আছে পুলিশ কি তাদের ধরতে পারে

আর একদিকে তারা নজর রেখেছে পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন জেলার প্রায় 25 টি অর্থলগ্নিকারী সংস্থার উপর।

গত তিন মাস ধরে ওঠা ঐ প্রত্যেকটি সংস্থার বিরুদ্ধে অভিযোগ নথিভূক্ত করা হয়। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে মামলা দায়ের করে ইতিমধ্যেই তদন্ত শুরু করেছে সিবিআই।

খোদ শহর কলকাতা উত্তর 24 পরগনার হাওড়া থেকে শুরু করে বিভিন্ন জেলায় ছড়িয়ে আছে এই চিটফান্ড গুলি । এই চিটফান্ডের সংস্থাগুলিকে কষ্টার্জিত অর্থ লগ্নি করে বিপাকে পড়েছে হাজার হাজার মানুষ।

বহু চিটফান্ড মালিক লুকিয়ে আছে পুলিশ কি তাদের ধরতে পারে

এই সব টাকা ফেরত পাওয়ার দাবিতে 2013 সাল থেকে রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় অভিযোগ দায়ের করেন লগ্নিকারীরি। সেই অভিযোগ গুলোই এবার হাতে এসেছে সিবিআইয়ের।

তবে গোয়েন্দারা নাকি জানিয়েছেন ওই অর্থলগ্নিকারী সংস্থা কারীর কর্ণধাররা ইতিমধ্যেই নাকি বেপাত্তা। কিন্তু তাদের খোঁজও শুরু হয়ে গেছে।

ওই 25 টি সংস্থার মধ্যে রয়েছে কলকাতা সাউথ এভিনিউয়ের ফিউচার মার্গ রিয়েলিটি, উত্তর 24 পরগনার বারাসাতের এমবিপি মার্কেটিং সার্ভিসেস লিমিটেড ,মধ্যমগ্রামের আরটিসি রিয়েল ট্রেড ,হেমনগরের ইউনিয়ন এগ্রোটেক লিমিটেড ,বাগুইআটির এক্সপ্রেস কাল্টিভেশন প্রাইভেট লিমিটেড, হাওড়া বাগানের রেভেলিউশন মার্কেটিং কনসেপ্ট, বিষ্ণুপুরের হাসপার ম্যাক্রো ফিন্যান্স সোশ্যাল ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট ইত্যাদি।

এছাড়াও আছে পূর্ব মেদনীপুর, মুর্শিদাবাদ, বীরভূম, কোচবিহার, এসব জেলা থেকেও হাজার হাজার অভিযোগ পেয়েছেন সিবিআইয়ের আধিকারিকরা।

বহু চিটফান্ড মালিক লুকিয়ে আছে পুলিশ কি তাদের ধরতে পারে

সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে সেসব চিটফান্ড সংস্থার বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করা হয়েছে বলে জানান সিবিআইয়ের এক কর্তা।
সূত্রের খবরে জানা গিয়েছে বাগুইআটির এক্সপ্রেস কাল্টিভেশন প্রাইভেট লিমিটেডের কর্ণধার রয়েছেন 10 জন ব্যক্তি।

এক এজেন্ট তার গ্রাহকদের হয়ে টাকা চাইতে গেলে তাকে মারধর করা হয়। আবার এদিকে উত্তর 24 পরগনার হেমনগর ইউনিয়ন এগ্রোটেক লিমিটেড এর বিরুদ্ধে অভিযোগ।

Monalisa কালো বিকিনিতে স্বামীর সাথে জলকেলিতে মগ্ন

সাধারণ মানুষকে বড় বড় স্বপ্ন দেখিয়ে জেলায় থাকা দফতরে এনে টাকা নিয়ে নিতেন এজেন্টরা। এমনই এক আর্থিক সংস্থায় 12 লক্ষ টাকা লগ্নি করে প্রতারিত হয়েছেন হাবড়ার বাসিন্দা এক প্রাক্তন পুলিশ আধিকারিক।

এমন হাজারো অভিযোগে হাতে এসেছে সিবিআইয়ের তদন্তকারীদের হাতে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x
Translate »